বৌদির সঙ্গে পরকীয়া, জেনে যাওয়ায় খুন বৌকে

উত্তম মাইতি, পূর্ব মেদিনীপুরঃ বৌদির সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক স্বামীর। স্ত্রী জানতে পারায় খুন তাকে, অভিযোগ বাপের বাড়ির। তমলুক পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ডের পদুমবসান গ্রামে নবনীতা দাস নামে এক গৃহবধূর রহস্য জনক মৃত্যুর ঘটনায় থানায় অভিযোগ না নেওয়ায় উত্তেজনা। কোলকাতা থেকে গৃহবধূর বাপের বাড়ির লোকজন তমলুক থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে অভিযোগ না নেওয়ায় বাপের বাড়ির লোকেদের বিক্ষোভ ও পুলিশের সংগে ধস্তাধস্তি তমলুক থানায়। সংবাদ মাধ্যম ছবি করতে গেলে বাধা দেয় পুলিশ। তমলুকের ১২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা লক্ষ্মণ দাসের সংগে ২০০৬ সালে কোলকাতার নরেন্দ্রপুরের নবনীতা বিয়ে হয়। তাদের এগার বছরের একটি ছেলে আছে। বাপের বাড়ির অভিযোগ লক্ষ্মণের সংগে নবনীতার মনোমালিন্য চলছিলো বহুদিন ধরে। লক্ষ্মণের নিজের বড় বৌদির সংগে অবৈধ সম্পর্ক ছিল বলে অভিযোগ তাদের। নবনীতা এই বিষয়ে তার ছোট বোন অনিন্দিতাকে ফোনে জানাতো প্রায়। শনিবার বিকেলে লক্ষ্মণ দাস নবনীতার বাপের বাড়িতে ফোন করে জানায় নবনীতা মারা গেছে শ্বাষ কষ্টে মারা গেছে। বাপের বাড়ির লোক শনিবার তমলুক থানায় এসে অভিযোগ দায়ের করতে গেলে পুলিশ অভিযোগ নেয়নি।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *