প্রশাসকের হাতে গেল টাকী পৌরসভার দায়িত্ব।


সৌরভ দাশ, হাসনাবাদ : উত্তর চব্বিশ পরগনার সীমান্তবর্তী ঈছামতী নদী লাগোয়া প্রাচীন এলাকা টাকী।ঈছামতী নদী লাগোয়া এই গ্রামে পৌরসভার পত্তন হয় ১৮৬৯ সালে।মুলত সি.পি.আই.এমের শক্ত ঘাটি হিসাবেই পরিচত টাকীর পটপরিবর্তন ঘটে বছর দশেক আগে।বাম জামনার অবসান ঘটিয়ে টাকী পৌরসভার ক্ষমতায় আসে তৃনমুল পরিচালিত বোর্ড।পৌরপ্রধান হিসাবে দায়িত্ব ভার গ্রহন করেন ছাত্র রাজনীতি করে উঠে আসা সোনমাথ মুখোপাধ্যায়। প্রথম পাঁচ বছরের পর দ্বিতীয় দফার জন্য ফের ক্ষমতায় ফেরে তৃনমুল।
বিগত ভোটে ১৬ টি ওয়ার্ড সমন্বিত এই পৌরসভার ৮ টি ওয়ার্ড থাকে তৃনমুলের হাতে, তৃনমুল ছাড়া সি.পি.আই.এমের দখলে ৫ টি ও বি.জে.পি র দখলে থাকে ৩ টি ওয়ার্ড।পরবর্তী তে বি.জে.পি র প্রতিনিধি তৃনমুলে যোগদান করায় তৃনমুলের আসন সংখ্যা হয় ৯।তবে পরবর্তী তে ফের বি.জে.পি তেই ফেরেন যোগদাতা প্রতিনিধি।
গত ২৪ শে মে মেয়াদ শেষ হয় পৌর বোর্ডের।বুধবার প্রশাসক হিসাবে পৌরসভার দায়িত্বভার গ্রহন করেন টাকীর গত দুবারের পৌরপ্রধান সোমনাথ মুখোপাধ্যায় ও নব্যপ্রাক্তন উপপৌরপ্রধান আজিজুল ইসলাম গাজী ।
দায়িত্বভার গ্রহন করার পরই বসিরহাট দক্ষিনের বিধায়ক দীপেন্দু বিশ্বাস উপস্থিত হয়ে সম্বর্ধিত করেন নতুন দুই প্রশাসক কে।টাকী ছাড়াও এদিন বসিরহাট পৌরসভার ক্ষমতায় আসীন হন বসিরহাটের নব্যপ্রাক্তন পৌরপিতা।
প্রশাসকের দায়িত্ব নিয়ে টাকীর নব্য প্রাক্তন পৌরপ্রধান সোমনাথ মুখোপাধ্যায় জানান জনপ্রতিনিধি হিসাবে দায়িত্ব ভার সামলিয়েছেন এতদিন,এবার সরকারের প্রতিনিধি হিসাবে সরকারী নির্দেশ মতো টাকীর যে সমস্ত উন্নয়ন সংক্রান্ত কাজ বাঁকি আছে সেগুলো করা হবে।আজিজুল ইসলাম গাজী জানান টাকী পৌরসভার কিছু এলাকায় রাস্তা ঘাট,ড্রেন সহ পানীয় জলের কাজ বাঁকি আছে, উচ্চ পদস্থ সরকারী আধিকারিক দের সন্গে কথা বলে প্রশাসক হিসাবে টাকীর উন্নয়ন কে ত্বরান্বিত করার চেষ্টা করবেন।👇

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *