স্থানীয় কালী পূজার চাঁদা বাবদ ৫ হাজার টাকা আদায় করে পূর্বস্থলী থানার এএসআই সাসপেন্ড

নিজস্ব সংবাদদাতা, পূর্ব বর্ধমানঃ থানায় বসেই চাঁদার চাপ। কালী পুজোয় জোর করে চাঁদা তোলার অভিযোগে শাস্তি পেলেন দুই পুলিশকর্মী। তাঁদের মধ্যে একজন এএসআই, অন্যজন থানারই বড়বাবু, অর্থাৎ আইসি।
চাঞ্চল্যকর এমনই অভিযোগ উঠেছে পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলী থানার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত এএসআই-কে সাসপেন্ড করেছে জেলা পুলিশ। অন্যদিকে, তাঁকে সাহায্য করার অভিযোগে পূর্বস্থলী থানার আইসি-কে কালিম্পং জেলার পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে|
অভিযোগ, স্থানীয় একটি কালী পুজোর জন্য এলাকার এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে পাঁচ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করেছিলেন পূর্বস্থলী থানার এএসআই কবিরুদ্দিন খান। একইভাবে এলাকার আরও অনেকের কাছ থেকেই তিনি ভয় দেখিয়ে চাঁদা আদায় করেন বলে অভিযোগ।
এর পরেই ওই ব্যবসায়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্য পুলিশের ডিজি এবং জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ জানান। এর পরেই নড়েচড়ে বসে জেলা পুলিশ কর্তৃপক্ষ। অভিযোগকারী ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চাঁদার রসিদ, কথপোকথনের ভয়েস রেকর্ডিংও সংগ্রহ করা হয়।
অভিযোগ খতিয়ে দেখার পরে তা প্রমাণিত হওয়ায় কবিরুদ্দিন খান নামে ওই এএসআই-কে কালীপুজোর দিন সাসপেন্ড করা হয়।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *