বৃষ্টি বিঘ্নিত পরিস্থিতিতে শিলিগুড়ি -কোলকাতা অতিরিক্ত বাস পরিষেবার উদ্যোগ উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার চেয়ারম্যান পার্থ প্রতিম রায়ের

দেশ ও এই সময় : এক অভিনব উদ্যোগ, প্রাক্তন সাংসদ তথা এন বি এস টি সি চেয়ারম্যান পার্থপ্রতিম রায় উদ্যোগ নিলেন পুজোতে ঘুরতে আসা মানুষদের কলকাতায় ফেরানোর । তিনি বলেন, ‘যে সমস্ত পর্যটক সিকিম, দার্জিলিং বা ডুয়ার্সের অন্যান্য জায়গায় এসে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে আটকে পড়েছেন এবং কলকাতায় ফেরার জন্য ট্রেন বা বিমানের টিকিট পাচ্ছেন না তাঁদের জন্য এনবিএসটির তরফে বিশেষ বাস পরিষেবা চালু করা হচ্ছে। বুধবার থেকেই এই পরিষেবা চালু হয়েছে। আপাতত তিনটি বাস এই পর্যটকদের জন্য প্রস্তুত রাখা হলেও দরকার মতো আরও বাস বাড়ানো হবে। পর্যটকদের অনুরোধ জানাব তাঁরা যেন শিলিগুড়িতে তেনজিং নোরগে বাস টার্মিনাসে এসে যোগাযোগ করেন। ঘরে ফেরার জন্য আমরা সবরকম সহযোগিতা করব।’

লাগাতার বৃষ্টি এবং বৃষ্টিতে তৈরি হওয়া ধসের জন্য উত্তরবঙ্গের পাহাড়ে তৈরি হয়েছে কঠিন অবস্থা। ধসে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিভিন্ন রাস্তা। ফলে দার্জিলিং, কালিম্পং-সহ অন্যান্য পর্যটনকেন্দ্রগুলিতে আটকে আছেন বহু পর্যটক। এর পাশাপাশি পাহাড়ে বেড়াতে যাবেন বলে বহু ভ্রমণপিপাসুও ট্রেনে বা বাসে করে এসে শিলিগুড়িতে আটকে পড়েছেন। প্রাকৃতিক দুর্যোগের জন্য ভ্রমণের পরিকল্পনা বাতিল করে অনেকেই ঠিক করেছেন ঘরে ফিরে যাবেন। কিন্তু ফেরত আসতে চাইলেও দরকারি ট্রেন বা বিমানের টিকিট এইমুহুর্তে জোগাড় করাটাও একটা বড় সমস্যার।

চেয়ারম্যান তথা প্রাক্তন সাংসদ পার্থপ্রতিম রায়

গোটা বিষয়টি মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।তিনি নিজে দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলে এই পর্যটকদের ফেরাতে জরুরি ভিত্তিতে বাসের বন্দোবস্ত করেছেন। যদিও এমনিতেই শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার বা উত্তরবঙ্গ থেকে আমাদের নিয়মিত কলকাতামুখী বাস পরিষেবা আছে। তার বাইরেও আপৎকালীন পরিস্থিতির জন্য আরও অতিরিক্ত বাস পরিষেবা চালু করা হচ্ছে।

পরিবহনমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ও চেয়ারম্যান পার্থ প্রতিম রায়

সরকারের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে বাঙালি পর্যটক মহল। বিগত দিনে সংসদে যেমন দাবি দাওয়ার জন্য মুখরিত হয়েছিলেন এই প্রাক্তন সাংসদ, বর্তমানে উত্তরবঙ্গ পরিবহন দপ্তরের চেয়ারম্যান হওয়ার পর তাঁর নিজস্বতায় দোতলা বাস পরিষেবা, আন্তরাষ্ট্রীয় পরিষেবা থেকে শুরু করে এই উদ্যোগ উৎসবমুখর বাঙালিকে আবারো চিন্তা মুক্ত করল।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *