ব্যাতিক্রম মমতা, শেষ পাঁচ বছরে অর্ধেক হয়ে গেল সম্পত্তির পরিমাণ- বলছে নির্বাচনী হলফনামা

বুধবার তমলুকে মহকুমাশাসকের কাছে বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম কেন্দ্র থেকে নিজের মনোনয়ন পেশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিয়ম মেনে তার সঙ্গে পেশ করেছেন হলফনামা। যাতে নিজের মোট সম্পদের পরিমাণ জানিয়েছেন তিনি। গত বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রীর হলফনামার সঙ্গে তুলনা করে দেখা যাচ্ছে, তাতে মুখ্যমন্ত্রীর সম্পদের পরিমাণ কমে হয়ে গিয়েছে প্রায় অর্ধেক। 

রাজনৈতিক নেতাদের গুণিতক হারে সম্পদবৃদ্ধিটাই যে দেশে দস্তুর সেখানে কমে গেল পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর সম্পদ কমে হয়ে গেল অর্ধেক। বুধবার মুখ্যমন্ত্রী যে হলফনামা পেশ করেছেন তাতে তিনি নিজের মোট সম্পদের পরিমাণ জানিয়েছেন ১৬.৭২ লক্ষ টাকা। যা গত বিধানসভা নির্বাচনে পেশ করা সম্পদের প্রায় অর্ধেক। ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৩০.৭৫ লক্ষ টাকা বলে জানিয়েছিলেন। অর্থাৎ মুখ্যমন্ত্রীর সম্পদ কমেছে প্রায় ৪৫.১ শতাংশ। 

এবার পেশ করা হলফনামা অনুসারে মুখ্যমন্ত্রীর হাতে নগদ রয়েছে ৬৯,২৫৫। ব্যাঙ্কে রয়েছে ১৩.৫৩ লক্ষ টাকা। অন্যান্য বিনিয়োগ রয়েছে ১৮,৪৯০ টাকা। গয়না রয়েছে ৪৩,৮৩৭ টাকার। গত বারের তুলনায় এবার লক্ষ্যণীয় ভাবে কমেছে মুখ্যমন্ত্রীর ব্যাঙ্কে জমার পরিমাণ। গত বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রীর ব্যাঙ্ক ব্যালান্স ছিল ২৭.৬১ লক্ষ টাকা। কমেছে অন্যান্য বিনিয়োগের পরিমাণও। ২.১৫ লক্ষ থেকে কমে তা হয়েছে মাত্র ১৮,৪৯০। তবে বেড়েছে গয়নার মূল্য। ২৬,৩৮০ টাকা থেকে বেড়ে তা হয়েছে ৪৩,৮৩৭ টাকা। যদিও এই সময়ে ধাতুর দামও অনেকটা বেড়েছে।

দেশে সব থেকে কম সম্পদশালী মুখ্যমন্ত্রীদের একজন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার আরও কমল তার সম্পদের পরিমাণ। যা গোটা দেশে নজির বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *