নদিয়া জেলা সংশোধনাগার থেকে দীপাবলির রাতে পালালো সাজাপ্রাপ্ত আবাসিক

নিজস্ব প্রতিনিধি,নদিয়া: প্রায় দু সপ্তাহ আগে দমদম সংশোধনাগার থেকে কৃষ্ণনগর সংশোধনাগারে নিয়ে আসা হয়। সাজাপ্রাপ্ত বন্দীকে। সাজাপ্রাপ্ত বন্দীর নাম আশরাফুল মোল্লা।সে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার একজন সাজাপ্রাপ্ত যাবজ্জীবন আবাসিক। সেই আবাসিক দীপাবলীর রাতে নদিয়ার কৃষ্ণনগর জেলা সংশোধনাগার থেকে পাঁচিল টপকে পালিয়ে গেল। দীপাবলীর রাতে সংশোধনাগারে ভেতরে আবাসিকদের কালি পুজো এবং বাইরে চলছিল কারারক্ষীদের পুজো । পুজোর রাতেই লোহার রডে আংশি তৈরি করে দুটো গামছাকে একসাথে বেঁধে পাঁচিল টপকে পালায় সেই আবাসিক। পরেরদিন সকাল পাঁচটা নাগাদ বিষয়টি কারা রক্ষীদের নজরে এলে শুরু হয় তল্লাশি। ঘটনার তদন্তে আসে ডিআইজি দমদম অরিন্দম সরকার। সকাল ১১ টা থেকে সংশোধনাগারের বিভিন্ন দিক তদন্ত করে তদন্ত রিপোর্ট উচ্চপর্যায়ে জানাবেন বলে জানান তিনি। ঘটনা প্রসঙ্গে রাজ্যের কারা দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস জানালেন, গতকাল ভেতরে এবং বাইরে কালী পুজো ছিল সেই সুযোগেই লোহার আংটি তৈরি করে প্রায় ৪০ ফুট পাঁচিল টপকে কি করে পালালো তা উচ্চ পর্যায়ের একটি তদন্ত কমিটি তৈরি করে তার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। এত বড় একটা লোহার রড কিভাবে তার কাছে এল তা নিয়েও কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে তাহলে কি এই ঘটনায় কারারক্ষীদের একাংশ জড়িত? এই ঘটনার সাথে কেউ জড়িত রয়েছে কিনা তারও তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলে কারা দপ্তর সূত্রের খবর।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *