নন্দীগ্রামে নির্বাচনে গণনায় কারচুপির অভিযোগে হাইকোর্টে মামলা দায়ের, আগামিকাল শুনানির সম্ভাবনা

দেশ ও এই সময়:

একুশের বিধানসভা নির্বাচনে হাইভোল্টেজ কেন্দ্র ছিল নন্দীগ্রাম। দাদা বনাম দিদির লড়াইয়ের দিকে নজর ছিল গোটা দেশের।রাজ্যজুড়ে BJP-র ভরাডুবি হলেও নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর কাছে পরাজিত হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও ভোটের ব্যবধান ছিল অতি সামান্য। এরপরেই তাঁর বিরুদ্ধে ভোটে কারচুপির অভিযোগ তুলেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। তিনি বলেছিলেন, ‘কারচুপি হয়েছে, আমরা কোর্টে যাব।’

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মমতা জয়ী ঘোষণার পরেও নন্দীগ্রাম পুনর্গণনায় এগিয়ে যান শুভেন্দু। ২রা মে সকালবেলা গননা শুরুর পর থেকেই সাপলুডোর খেলা চলে সবথেকে হাইভোল্টেজ আসন নন্দীগ্রামে। একবার শুভেন্দু এগিয়ে যাচ্ছেন তো  একবার তৃনমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গণনার দিন বিকেল ৫ টা নাগাত ১৭ রাউন্ড গণনার পর সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয় হাইভোল্টেজ লড়াইয়ে অবশেষে জিতলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বিজেপির শুভেন্দু অধিকারীকে হারিয়েছেন ১২০০ ভোটে।
সঙ্কটে বিরোধী দলনেতার বিধায়ক পদ, শুভেন্দু অধিকারীর-র বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক তথা বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর জয় নিয়ে এই মামলা হয়েছে। হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চে আগামিকালই এই শুনানি হবে বলে জানা গিয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *