আজও রায়দিঘির ভরসা কান্তি গাঙ্গুলি

নিউজ ডেস্ক:বুলবুলের আতঙ্কে তখন আতঙ্কিত সুন্দরবনের লক্ষ লক্ষ মানুষ। তখনই দু-তিনজন সঙ্গীকে নিয়ে অন্ধকার গ্রামের রাস্তায় বেরিয়ে পড়েছিলেন সিপিআইএমের প্রাক্তন বিধায়ক এবং প্রাক্তন মন্ত্রী কান্তি গাঙ্গুলি। বাড়ি বাড়ি গিয়ে শুনেছিলেন সমস্যার কথা। তাদের পৌঁছে দিয়েছিলেন নিরাপদ আস্তানায়।
সারারাত এভাবেই কাজ করেছেন সত্তরোর্ধ্ব কান্তি গাঙ্গুলি। তাও ক্লান্তি স্পর্শ করেনি কান্তিকে। রবিবার সকাল থেকেই চষে ফেলছেন রায়দিঘির বিভিন্ন গ্রাম। কোথায় পৌঁছে যাচ্ছেন পায়ে হেঁটে আবার কখনো ভ্যান রিক্সায়। কোন রাস্তায় গাছ পড়ে গেছে, কোন বাড়ির উপর গাছ পড়েছে, সেসব তদারকি করছেন কান্তি। বোঝার উপায় নেই ২০১১ সালের পর তিনি মন্ত্রী তো দূর আর বিধায়কও নন। এই প্রশ্ন করলেই কান্তি বলছেন, মানুষের পাশে থাকতে গেলে সরকারে থাকতে হয় নাকি।
আর তাই রায়দিঘি তে নিজের বাড়িতেই খুলে ফেলেছেন আশ্রয় শিবির। বুলবুলের তাণ্ডবে আশ্রয়হীন কয়েকশো মানুষকে নিয়ে এসেছেন সেখানে। ব্যবস্থা করেছেন দুপুরে খিচুড়ি খাওয়ানোর। বুলবুলে আতঙ্কিত মানুষ প্রিয় কান্তি তাকে দেখতে পেয়ে, অনেকটাই ভরসা পাচ্ছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *