ঢাকাই গৌতম খুনে ১৪ জনের মধ্যে ১৩ জন গ্রেপ্তার

নিজস্ব সংবাদদাতা,বারাসাত: অবশেষে ঢাকাই গৌতম খুন কান্ড সহ একাধিক খুন ও রাজনৈতিক সন্ত্রাস কান্ডে অভিযুক্ত সাহাবুদ্দিন গ্রেপ্তার । বৃহস্পতিবার মধ্যমগ্রাম থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার সাহাবুদ্দিন ওরফে সাবু । গত ২ ফেব্রুয়ারি মধ্যমগ্রামের একটি সেলুনে খুন হতে হয় প্রোমোটার গৌতম দে সরকারকে । প্রোমোটিং সংক্রান্ত দ্বন্দেই প্রাণ যায় তাঁর ।

আমডাঙ্গা রাজনৈতিক সন্ত্রাসে তার প্রত্যক্ষ যোগ রয়েছে এবং ঢাকাই গৌতম খুনের অন্যতম সার্প সুটার ছিল সাহাবুদ্দিন ওরফে সাবু ,সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অভিজিত বন্দোপাধ্যায় ।তার পুলিশি হেফাজত চাওয়া হবে । এতদিন আমডাঙ্গার বড়গাছিয়া বিল এলাকায় আত্মগোপন করে ছিল অভিযুক্ত । ঢাকাই গৌতম খুনে ১৪ জনের মধ্যে ১৩ জন গ্রেপ্তার হলে মুল অভিযুক্ত টুবাই মোদক এখনও অধরা।

গত ২ ফেব্রুয়ারি মধ্যমগ্রামে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে খুন করা হয় প্রোমোটার গৌতম দে সরকার ওরফে ঢাকাই গৌতম কে । বয়স ৫২।বাড়ি মধ্যমগ্রামে । পুলিশি তদন্তে প্রকাশ হয় প্রমোটিং সংক্রান্ত রেষারেষির জেরে খুন । নিহত কে এর আগে বেশ কিছু বছর আগে গুলি চালিয়ে খুন করার দুবার চেষ্টা করলেও প্রাণে বেঁচে গেছিলেন গৌতম দে সরকার । ফেব্রুয়ারীর দু তারিখ রক্ষা মেলে নি । ঘটনার দিন সকালে দশটা চল্লিশ নাগাদ বঙ্কিম পল্লীর একটি সেলুনে এসে অন্তত বারোজন লাগাতার গুলি চালায় ।ঘটনা স্থলে ঢোকার আগে বেশ কয়েকটি বোমা চার্জ করা হয় । কার্যত মৃত্যু নিশ্চিত করে ঘটনাস্থল ছাড়ে আততায়ীরা । বারাসাত নারায়না নার্সিং হোমে আনলে তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয় । পরিবার ও এলাকাবাসীরা যশোর রোড অবরোধ করে । মধ্যমগ্রাম থানা ঘেরাও করে ।পরিবারের পক্ষ থেকে সুনির্দিষ্ট ভাবে অন্তত বারোজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ হলেও মূল অভিযোগ টুবাই মোদকের বিরুদ্ধে ।যদিও তাঁদের বক্তব্য ঘটনাস্থলে চোদ্দো জন আততায়ী ছিল । এদের মধ্যে অনেকেই ভাড়াটে খুনী ।এদের মধ্যে অন্যতম আম ডাঙ্গার শাহাবুদ্দিন অন্যতম । নিহত গৌতম দে সরকারের ভাই কার্তিক দে সরকার প্রত্যক্ষ দর্শী হিসেবে জানান , গৌতম দে সরকার দাড়ি কাটতে বসলে ছটি গাড়িতে জনা পনের দুস্কৃতি ঢুকে পড়ে । টুবাই মোদকের ঘনিষ্ঠ জনৈক কুরু বোস তাকে চিনিয়ে দেওয়ার কাজ করে । এরপর সেলুনের শাটার বন্ধ করে শুরু হয় এলোপাথাড়ি গুলি ।অন্তত বারো থেকে পনেরো রাউন্ড গুলি চলেছে । পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ ওঠে টুবাই মোদক রাজনৈতিক নেতা ও পুলিশের স্নেহধন্য হওয়ায় প্রমোটিং সংক্রান্ত কারণে বর্তমানে কিছুটা রাজনৈতিক দিক থেকে ব্যাক ফুটে থাকা গৌতম দে সরকার কে খুন হতে হয়েছিল।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *