জেলায় প্রথম করোনা আক্রান্ত মৃতদেহকে নিজের বাড়িতেই কবরস্থ করা হলো, উদ্যোগে আরসাদ উদ্-জামান

বারাসাত: এতদিন সরকার নিজ দায়িত্বে সরকারী কোনো স্থানে করোনায় আক্রান্ত মৃতদেহ সৎকারের কাজ করতেন কিন্তু এই প্রথম বারাসাত-১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আরসাদ উদ্-জামান, S.D.O বারাসাত সদর ও বারাসাত-১ BDO মামুন আখতারের সম্পূর্ণ নিজস্ব তত্ত্বাবধানে শুক্রবার ছোটজাগুলিয়ার এক করোনা আক্রান্ত মৃতদেহকে তার বাড়িতে ফেরানো হয় এবং মৃতদেহকে নিজের জায়গায় কবরস্থ করা হয়। সমস্ত সরকারী বিধি ও কোভিড প্রোটোকল মেনেই মৃতদেহকে কবরস্থ করা হয়।

হাসপাতাল থেকে বের করে আনা হচ্ছে মৃত আব্দুল সাত্তারের দেহ

মৃত আব্দুল সাত্তার বারাসাত-১ পঞ্চায়েত সমিতির অধীন ছোটজাগুলিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বড়া পেকে পাড়ার বাসিন্দা। বিগত কয়েক দিন ধরে কদম্বগাছির জেএনআরসি-এ হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। আজ ভোরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত আব্দুল সাত্তার এর স্ত্রী হোসনেয়ারা বিবি, যিনি গত ২০০৮-১৩ সালে বারাসাত-১ পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যা ছিলেন।

তত্ত্বাবধানে বিডিও মামুন আখতার এবং পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আরসাদ উদ্-জামান

বিগত দিনে করোনা আক্রান্তের মৃতদেহ রোগীর পরিবারে না দেওয়ায় প্রথামত অনেকেই তাদের পরিবারের মানুষকে শেষ বিদায় জানাতে পারেননি। ফলে দুঃসময়ে এভাবে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আরশাদ উদ্-জামানের নতুন ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে দেখে এলাকার মানুষ খুব খুশি। এলাকার সাধারণ মানুষের বক্তব্য, তাঁর মতো নেতৃত্ব এই সময় গোটা এলাকাতেতো বটেই, পুরো দেগঙ্গা বিধানসভা এলাকায় পাওয়া মুশকিল। তিনি যত বড় নেতৃত্ব, তাঁর চেয়েও বড় মনের মানুষ। তা না হলে কেউ নিজের জীবন ঝুঁকিতে ফেলে অন্যের জীবন বাঁচানোর উদ্যোগ নিতে পারেন!

কবর স্থানে তদারকি, পরবর্তীতে এখানে কবরস্থ করা হয় করোনা আক্রান্ত মৃতদেহ

তবে যার উদ্যোগে এই ঘটনা ঘটল সেই আরসাদ উদ্-জামান তিনি সম্পূর্ণ কৃতিত্ব বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যাযষয়কে উৎসর্গ করেছেন। তিনি বলেন, দিদিই আমাদের আদর্শ।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *