বাইবেলে নেই যীশুর জন্মতারিখ, ২৫ শে কেন পালন হয় বড়দিন – জানুন কিছু তথ্য

বাইবেল অনুসারে যীশু খ্রীষ্টের জন্মের কথা বলা থাকলেও নির্দিষ্ট কোনো জন্ম তারিখ নেই। তবুও কেন আমরা ২৫ শে ডিসেম্বর প্রভু যীশুর জন্মদিন পালন করি। আসুন জেনে নেই—

ক্রিসমাসের উদ্বোধন

৩৩৬ খ্রিঃ ২৫ শে ডিসেম্বর রোমান রাজা কনস্টানটাইন এর আমলে প্রথম ক্রিসমাসের উদ্বোধন হয়, এরপর পোপ জুলিয়াস ২৫ শে ডিসেম্বরের তারিখটিকে যীশু খ্রীষ্টের জন্মদিবস হিসেবে পালন করা হবে বলে ঘোষণা করেন। রোমেই প্রথম ক্রিসমাস পালিত হয়।

কিভাবে এল X-Mass?

যদিও X-mass এর “X” এসেছে গ্রিক থেকে, যার ইংরেজি অর্থ “খ্রিস্ট”। আর “mass” কথাটি এসেছে ল্যাটিন শব্দ “missa” থেকে।

ক্রিসমাস ট্রি

২০০৪ সালে পোপ জন পল্ প্রথম ক্রিসমাস ট্রি-কে প্রতিস্থাপিত করেন। সকলের মতে এই গাছটি শীতের মরসুমে চিরসবুজ প্রানের সঞ্চার করে, যা খ্রিস্টানদের ও যীশুখৃষ্টের প্রতীক হিসেবে চিহ্নিত করা যায়।

ক্রিসমাসে উপহারের আদানপ্রদান

আসলে যীশু খ্রীস্টের জন্মের সময় “বিবলিকাল ম্যাগি” শিশু যীশু খ্রিস্টকে উপহার দিয়েছিলেন এবং সেই থেকেই ক্রিসমাসে উপহারের আদানপ্রদানের প্রথা শুরু হয়।

কাহিনি অনুযায়ী চতুর্থ শতাব্দীতে এশিয়া মাইনরের একটি স্থান মায়েরাতে (এখন তুর্কি) সেন্ট নিকোলাস নামের এক ব্যক্তি ছিলেন। তিনি খুবই ধনী ছিলেন কিন্তু তাঁর বাবা-মা মারা গিয়েছিল আগেই। সবসময় দরিদ্রদের গোপনে সাহায্য করতেন নিকোলাস। গোপনে মাঝে মাঝেই তাঁদের উপহার দেবার চেষ্টা করতেন তিনি।

উপহারের আশায় কেন মোজায় টানিয়ে রাখা হয়?

একদিন নিকোলাস জানতে পারেন যে একজন গরীব লোকের তিনটি মেয়ে আছে যাদের বিয়ের জন্য তার কাছে কোন টাকা নেই। নিকোলাস এই ব্যক্তিকে সাহায্য করার জন্য পৌঁছে যান। এক রাতে এই লোকটির ঘরের ছাদে লাগানো চিমনির কাছে পৌঁছে সেখান থেকে সোনাদানা পূর্ণ ব্যাগ বাড়িতে ঢুকিয়ে দেন। সেই সময় এই দরিদ্র ব্যক্তি নিজের মোজা শুকনোর জন্য চিমনিতে তা লাগিয়ে রাখছিলেন। মোজা নিকোলাসের দেওয়া সোনাদানায় ভরে যায়। এক বার না, টানা তিন বার এই ঘটনা ঘটে। শেষ বারে এই দরিদ্র লোকটি নিকোলাসকে দেখতে পেয়ে যান। নিকোলাস তাঁকে বলেন এই কথা কাউকে না জানাতে। কিন্তু বিষয়টি চাপা থাকে না। সেই দিন থেকে যখন কেউ কাউকে গোপন উপহার দেয়, মনে করা হয় নিকোলাস দিয়েছেন।

সান্তা ক্লজ

ধীরে ধীরে নিকোলাসের এই গল্পটি জনপ্রিয় হয়। বিশেষ করে ইংল্যান্ডে নিকোলাসের গল্পকে ভিত্তি করেই ক্রিসমাসে শিশুদের উপহার দেওয়ার চল তৈরি করা। ফাদার ক্রিসমাস এবং ওল্ড ম্যান ক্রিসমাস নামও দেওয়া হয়। যা পরবর্তীতে সান্তা ক্লজ নামে রূপকথার জন্ম দেয়।

অন্তর নাগ

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *