রাজ্যের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষের ১২৮তম জন্মদিন উদযাপন করলেন হলদিয়ায়

দিপালী দেবনাথ বাগ,পূর্ব মেদিনীপুরঃ- ৪০পাউন্ডের কেক কেটে রাজ্যের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষের ১২৮তম জন্মদিন উদযাপন করলেন হলদিয়ার মানুষজন। জন্মদিনের অনুষ্ঠানে তাঁর স্মৃতিবিজড়িত জায়গায় আইটিআই কলেজ গড়ার দাবিতে সরব হলেন এলাকাবাসী। প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষ স্মারক কমিটির উদ্যোগে এদিন হলদিয়ার বাড়বাসুদেবপুর গ্রামে তাঁর স্মৃতিবিজড়িত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ‘লোকভারতী’ প্রাঙ্গণে যথোচিত মর্যাদা ও উৎসাহ উদ্দীপনার সঙ্গে জন্মদিনের অনুষ্ঠান হয়। এখানে উপস্থিত ছিলেন হলদিয়া পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুব্রত হাজরা,সহ সভাপতি সাইফুল ইসলাম,জেলা পরিষদ সদস্য সোমনাথ ভুঁইয়া,পঞ্চায়েত সমিতি শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ অলোক দাস,বিশিষ্ট সাংবাদিক তথা বিশিষ্ট সমাজসেবী অর্নব দেবনাথ, শিক্ষক সুজন বালা,স্মারক কমিটির আহ্বায়ক দুর্গাপদ মিশ্র সহ এলাকার বিশিষ্ট মানুষজন। প্রসঙ্গত,১৮৯১ সালের ২৪ ডিসেম্বর প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষ বাংলাদেশের মালিবান্দায় জন্মগ্রহণ করেন।
এদিন ত্রিবর্ণ মোমবাতি জ্বালিয়ে সুদৃশ্য কেক কাটা,সবাইকে জন্মদিনের পায়েস খাওয়ানো হয়। রণতূর্য নামে একটি কলেজ পড়ুয়াদের সংগঠন সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করে। বিশিষ্ট মানুষজন প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর জীবনাদর্শ নিয়ে আলোচনা করেন। স্বাধীনতার পরই হলদিয়ায় এই ধরনের একটি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার দূরদর্শিতা নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন তাঁরা। একই সঙ্গে তাঁরা ‘লোকভারতী’কে সংরক্ষণ ও সরকারি উদ্যোগে আধুনিকমানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার দাবি জানান। স্মারক কমিটি আরও দাবি জানায়,ব্রজলালচক-চৈতন্যপুর সড়ক প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর নামে ঘোষণা করুক জেলা প্রশাসন।
পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ও শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ বলেন,প্রথম মুখ্যমন্ত্রী প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষ হলদিয়া গড়ে ওঠার আগে ১৯৫৫সালে এখানকার যুবকদের কারিগরি প্রশিক্ষণ দিতে লোকভারতী নামে বেসিক ট্রেনিং স্কুল গড়ে তুলেছিলেন এই প্রত্যন্ত বাড়বাসুদেবপুর গ্রামে। বিজ্ঞানী সত্যেন্দ্রনাথ বসু এই শিক্ষা কেন্দ্রের মডেল দেখতে হলদিয়া ছুটে এসেছিলেন। বাংলার দুই মহান ও কৃতী মানুষের স্মৃতিবিজড়িত গর্বের জায়গায় আমরা হলদিয়া ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে আইটিআই কলেজ গড়ার জন্য রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছি। এখানে ১০একর জমি রয়েছে। সেখানে প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর নামাঙ্কিত শিক্ষা কেন্দ্রের পাশাপাশি ইকো পার্ক পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং পরিবহণ ও পরিবেশ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে ইতিমধ্যেই আমরা চিঠি দিয়েছি।
এদিন হলদিয়া ব্লকের দেউলপোতা গ্রাম পঞ্চায়েত ও স্থানীয় একটি ক্লাবের যৌথ উদ্যোগে মর্যাদা ও শ্রদ্ধার সঙ্গে প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর ১২৮তম জন্মদিন পালন করা হয়। সেখানেও ব্লক প্রশাসনের লোকজন ও পঞ্চায়েতের প্রধান রিনা কুইতি এবং প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষের সহকর্মী অংশুকুমার কুইতি উপস্থিত ছিলেন। এই উপলক্ষে ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজনও করা হয়। প্রসঙ্গত,হলদিয়ার বালুঘাটা-কুকড়াহাটি রাস্তার পাশে বাড়বাসুদেবপুর গ্রামে অবহেলায় ধ্বংস হতে বসেছে পশ্চিমবঙ্গের প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর স্মৃতিধন্য বুনিয়াদি শিক্ষার ‘লোকভারতী’ বেসিক ট্রেনিং স্কুল।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *