তীর ধনুক নিয়ে পৌরসভার মধ্যে ডেপুটেশন

প্রীতম বর্দ্ধন, প্রতিনিধি , উত্তর ২৪ পরগণা:

“আজ নীচে মেরেছি, কাজ না হলে তীর এবার বুকে মারব” তীর ধনুক নিয়ে ডেপুটেশন জমা দিতে এসে হুমকি দিলেন অশোকনগরের এক আদিবাসী সম্প্রদায়ের মহিলা। ঘটনা অশোকনগর-কল্যাণগড় পুরসভা চত্বরের। ওই পুরসভার ২২ নং ওয়ার্ডে বেশ কিছু আদিবাসী পরিবারের বসবাস রয়েছে। দীর্ঘদিন যাবত তারা একপ্রকার সমাজের মূল সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। সেই সকল বাস্তুহারা আদিবাসীরা পৌরসভায় এসে ডেপুটেশন জমা দিলেন। তাদের দাবি—

  • প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা প্রকল্পে আদিবাসীসহ এলাকার সমস্ত বাস্তহারাদের অগ্রাধিকার দিতে হবে।
  • বিনা পয়সায় শৌচাগার বানাতে হবে।
  • বিধবা ভাতা, বৃদ্ধ ভাতা দিতে হবে।
  • অস্থায়ী পৌর কর্মচারীদের ন্যূনতম দৈনিক মজুরি বৃদ্ধি করতে হবে।

এরকমই বেশ কিছু দাবি নিয়েই সোমবার অশোকনগর কল্যাণগড় পৌরসভার এক্সিকিউটিভ অফিসার রবীন কুমার চক্রবর্তী কাছে ডেপুটেশন জমা দিলেন ঐ এলাকার আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষেরা। পৌরসভার ভিতরে ডেপুটেশন জমা দিতে এসে তারা বিক্ষোভ দেখান। এর জেরে পৌরসভার কাজকর্ম পুরো বন্ধ হয়ে যায়। ডেপুটেশন জমা দিতে এসে হাতে তীর ধনুক নিয়ে বিক্ষোভ দেখান তারা। তাদের অভিযোগ, “কাউন্সিলরের এই বিষয়ে নজর দেন না। তাই পৌরসভায় এসে ডেপুটেশন জমা দিতে বাধ্য হলাম। পৌরসভা সাত দিন সময় চেয়েছে।” যদি না হয় এই সাত দিনে তাহলে? “তাহলে পৌরসভায় তালা ঝুলবে” হুঁশিয়ারি বিজলী মুন্ডার। তবে একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানের ভিতরে তারা তীর ধনুক নিয়ে কিভাবে প্রবেশ করলেন সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠছে?

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *