প্রসঙ্গঃ ত্রিপুরা, তৃণমূলের বিক্ষোভ

নীলাদ্রি ভৌমিক, ২২ নভেম্বরঃ আসন্ন ত্রিপুরার পুর নির্বাচনের প্রচারকে কেন্দ্র করে, রাজ্য বিজেপির অনমোনীয় মনোভাব,তৃণমূল প্রার্থীদের মারধর, গ্রেফতারকে ঘিরে, রাজনৈতিক পরিবেশ জটিল হয়ে উঠেছে ৷ আজ, তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা সাংসদ অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের নির্ধারিত মিছিলের অনুমতি দিল না ত্রিপুরার প্রশাসন। যুব তৃণমূল নেত্রী ধৃত সায়নী ঘোষের সঙ্গে থানায় দেখা করতে যান, অভিষেক সহ কুনাল ঘোষ, অর্পিতা ঘোষ সহ তৃণমূল নেতৃত্ব। অন্যদিকে, ত্রিপুরায় সন্ত্রাস ও গণতন্ত্র ধ্বংসের বিরুদ্ধে, দিল্লির নর্থ ব্লকে তৃণমূলের সাংসদরা, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী তাঁদের আলোচনার সময় না দেওয়ায়, বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন, উপস্থিত ছিলেন, সৌগত রায়, ডেরেক ও ব্রায়েন, কল্যাণ বন্দোপাধ্যায়, দোলা সেন, সুখেন্দু শেখর রায় প্রমুখ। আবার, বঙ্গ তৃণমূলের যুব থেকে ছাত্র এবং মূল সংগঠনের উদ্যোগে, সায়নী ঘোষের গ্রেফতার ও ত্রিপুরার প্রশাসনের কদর্য ভূমিকার প্রতিবাদে, বিজেপির রাজ্য দফতরে বিক্ষোভ, জেলায় জেলায় কোথাও পথ অবরোধ এবং বিক্ষোভ আন্দোলন চলে৷ এই পরিস্থিতিতে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা চারদিনের দিল্লি সফরের উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছেন। তিনি, প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে ত্রিপুরার রাজনৈতিক সন্ত্রাস সহ রাজ্যের দাবি-দাওয়া নিয়ে, আলোচনা করেবন। রাজনৈতিক কর্মসূচিতে, দলীয় সাংসদদের সঙ্গে সভা এবং বিরোধী নেত্রী হিসাবে, বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির সঙ্গে, নতুন লড়াইয়ের সুরও বেঁধে দেবেন। এদিকে, ত্রিপুরা নিয়ে তৃণমূলের করা মামলার শুনানি কাল সুপ্রিম কোর্টে হওয়ার কথা। সবার নজর সেইদিকে৷ অর্থাৎ, ত্রিপুরার রাজনৈতিক উত্তাপের আঁচ, বাংলা থেকে খোদ রাজধানী দিল্লিতেও।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *