হোয়াটসঅ্যাপে এল নতুন ফিচার্স: জেনে নিন

নতুন এক পদ্ধতি এল হোয়াটসঅ্যাপে। ফেসবুকের এই মেসেজিং প্ল্যাটফর্মে এখন ব্যবহারকারীরা নিজের ছবি দিয়েই স্টিকার বানাতে পারবেন। আর সেটা টেক্সট করতে পারবেন। একটি নয়, আপনার একাধিক ফিলিংস আপনি প্রকাশ করতে পারবেন নিজস্ব স্টিকারের মাধ্যমে।

এখন হোয়াটসঅ্যাপে জিফ ফাইল বা ইমোজি পাঠাতেই অভ্যস্ত স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা। এর সঙ্গে যুক্ত হল নতুন ফিচার। জেনে নিন কিভাবে বানাতে হোয়াটসঅ্যাপ স্টিকার—

শুরুতেই দেখে নিন আপনার হোয়াটসঅ্যাপটি আপডেটেড কি না? এই ফিচারের জন্য দরকার কমপক্ষে ২.১৮ ভারসনের হোয়াটসঅ্যাপ।

এবার নিজের ছবি তুলুন। আপনি যে এক্সপ্রেশনের স্টিকার বানাতে চান সেই মত ছবি তুলুন মোবাইলে। এবার আপনার ছবিটিকে পিএনজি ফাইল বানাতে হবে। ফরমাট বদলানোর জন্য গুগল প্লে স্টোর থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড মুছে ফেলার কোন অ্যাপ ডাউনলোড করুন। বেছে নিন সেই ছবিটি যেটা দিয়ে স্টিকার বানাতে চান।

ছবিটিকে সিলেক্ট করে নতুন ডাউনলোড করা অ্যাপটি দিয়ে ব্যাকগ্রাউন্ড মুছুন। এর জন্য অটো, ম্যাজিক বা ম্যানুয়াল টুল ব্যবহার করতেই পারেন। ছবিটিকে স্টিকারের আকার দেওয়ার জন্য পছন্দ মত ক্রপ করুন। হোয়াটসঅ্যাপ শুধু মাত্র পিএনজি ছবিই সাপোর্ট করে। তাই ব্যাকগ্রাউন্ড মোছার পরে ছবিটিকে পিএনজি ফর্ম্যাটে সেভ করুন। এটা হয়ে গেলেই আপনার স্টিকার তৈরি।

এক সঙ্গে কমপক্ষে তিনটি বিভিন্ন মুডের স্টিকার বানান, কারণ হোয়াটসঅ্যাপ স্টিকার অ্যাড করার অপশন দেয় না। তিনটি স্টিকার তৈরির পরে ফের গুগল প্লে স্টোর থেকে ‘পার্সোনাল স্টিকার ফর হোয়াটসঅ্যাপ’ নামের অ্যাপ ডাউনলোড করুন এবং খুলুন। এই অ্যাপ নিজের থেকেই পার্সোনালাইজড স্টিকার খুঁজে নেবে।

যেখানে পার্সোনাল স্টিকারগুলো দেখতে পাবেন তার পাশেই অ্যাড বাটন দেখতে পাবেন। সেখানে ক্লিক করলে ফের অ্যাড অপশন আসবে এবং ক্লিক করতে হবে।

কাজ শেষ। এবার যে বন্ধুকে প্রথমেই পাঠাতে চান তার চ্যাট উইন্ডো খুলুন। দেখুন জিফ আইকনের পাশেই রয়েছে স্টিকার আইকন। পছন্দমত স্টিকার সিলেক্ট করুন আর পাঠিয়ে দিন। আপনি পরে আরও স্টিকার বানাতে পারেন। সবই রাখা থাকবে স্টিকার ব্যাঙ্কে।

দেশ ও এই সময়

তথ্য: ইন্টারনেট

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *