কলকাতায় দেদার বিকোচ্ছে “সেক্সটয়”, চাহিদা তুঙ্গে

কলকাতা: কলকাতায় হুহু করে বাড়ছে সেক্সটয়-এর চাহিদা। কয়েক বছর ধরে এর বিক্রি বেড়েছে উল্লেখ জনক। ফেন্সি মার্কেটের এক দোকানি অবশ্য আফসোস করলেন, বিক্রি বাড়লেও তার পুরো ফায়দা তুলছে অনলাইন বিক্রেতারা। কারণ, মেয়েরা দোকানে এসে সেক্সটয় কিনতে পছন্দ করেনা। দোকানে আসে একমাত্র পুরুষ খদ্দেররাই। যদিও পুরুষ খদ্দেরদের মধ্যেও এর চাহিদা ক্রমশ বাড়ছে। বছর তিনেক আগে যে বিক্রি ছিল তার পাঁচগুণ বেড়েছে এখন। আফসোস তাদের একটাই, গত কয়েক বছরে কলকাতার মেয়েদের মধ্যে যেভাবে হুহু করে বেড়েছে এর চাহিদা তার কোনো লাভ পাচ্ছে না স্থানীয় দিকানিরা। পুরোটাই কব্জা করে নিয়েছে অনলাইন।

কেন বাড়ছে মেয়েদের মধ্যে সেক্স টয়ের চাহিদা?? এর উত্তরে জনৈক সেক্সোলজিস্ট-এর ব্যাখ্যা, মেয়েদের মধ্যে সেক্সটওয়ের চাহিদা বরাবরই ছিল কিন্তু দোকানে গিয়ে কিনতে তারা সঙ্কোচ বোধ করতেন। সেইসঙ্গে অনলাইনে এর সরবরাহ হালে চালু হয়েছে। একইসঙ্গে চীনা সেক্সটয় বাজারে আসায় দামও কমেছে অনেকটাই। ওখান একটা ভালো পেনিস টয় পাওয়া যায় মাত্র তিনশ টাকায়।

সেক্সোলিজিস্টরা বলছেন, মেয়েদের মধ্যে এর চাহিদা বাড়ার আরও একটি কারণ, মেয়েরা ক্রমশ স্বনির্ভর হতে চাইছে, ফলে মা-বাবা-পরিবারের ঘেরাটোপ থেকে তাদের বের হতে হচ্ছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তাদের শহরে একা থাকতে হচ্ছে। হাতের মুঠোয় মোবাইলের পর্ন। অন্যদিকে অপরিচিত পরিবেশে যৌন জীবনের ঝুঁকি, মনোরঞ্জনের জন্য বিকল্প রাস্তা কম। সব মিলিয়ে ঘরের চার দেওয়ালের মধ্যে নিরাপদ যৌন সুখের জন্য সেক্সটয় হয়ে উঠছে সেরা বিকল্প।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *