ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে চলছে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের কুলগাছিয়া স্টেশনের অবৈধ বাজার

বাপ্পাদিত্য ঘোষাল ,হাওড়া-দক্ষিণ-পূর্ব রেলের গা ঘেঁষে কুলগাছিয়া স্টেশনে অবৈধ বাজারের বিস্তার গত এক বছরে আরও বেড়েছে। কুলগাছিয়া বাজারের ব্যবসায়ীদের তথ্য অনুযায়ী, আগে রেললাইনের ধারে প্রায় ৫০ মিটার অংশে বাজার বসত। এখন আগের তুলনায় অন্তত ১০০ মিটার বেড়েছে। এই বাজার ক্রেতা-বিক্রেতা দুই পক্ষের জন্যই বিপজ্জক।
মঙ্গলবার দুপুরে এলাকায় গিয়ে দেখা যায়,কুলগাছিয়া লেভেল ক্রসিং থেকে পূর্ব দিকে রেললাইনের পাশে কাঁচা সব্জি সহ হরেক রকম পণ্যের সমারোহ।হাওড়া খড়গপুর রুটে প্রায় ১৫ মিনিট পর পর ট্রেন চলাচল করে। রেলপথের ধারে ঝুঁকি নিয়ে চলে বিক্রিবাট্টা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ক্রেতা জানান বাজার রেললাইন ঘেঁষা হওয়ায় প্রায় সময়ই ট্রেনে কাটা পরে মানুষের মৃত্যু হয়, এত কিছু হওয়া সত্বেও রেলের তরফে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়নি,এবং পুরো বাজারের দোকানগুলো প্লাস্টিক ও পলিথিন দিয়ে তৈরি যেকোনো সময় লাগতে পারে আগুন।তিনি আরও বলেন মূল বাজারের চেয়ে দামে সস্তা এবং একসঙ্গে অনেক কিছু কিনলে শাক-সবজি, এমনকি ফলও ফাউ পাওয়া যায়। এ জন্য ক্রেতাদের সমর্থন পান এই ব্যাবসায়ীরা।দিনে-রাতে অন্তত দুই হাজার ক্রেতা কুলগাছিয়া রেললাইনের ধার থেকে কাঁচা সামগ্রী কিনে থাকে,রাত ১১টা পর্যন্ত টানা বেচাকেনা চলে। এমন তথ্য জানা যায় বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে।নিত্য-যাত্রীরা প্রশ্ন তুলেছেন এই বাজার রেল লাইনের কাছে হওয়ায় যদি কোনো বড় দুর্ঘটনা ঘটে তখন কি হবে?
ব্যবসায়ী সমিতির নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সদস্য বলেন, ‘রেলের কিছু কর্মকর্তার প্রশ্রয়ে অবৈধ বাজারের সীমানা আরও বেড়েছে। এলাকার থানা বা রেলওয়ে পুলিশ অবৈধ দোকানিদের কখনো বাধা দেয় না। অবৈধ বাজার উচ্ছেদের দায়িত্ব তাদেরই।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *