ব্যক্তিগত আয়ের প্রসঙ্গে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

দেশ ও এই সময় নিউজ ডেস্ক,কলকাতা :রামপুরহাটের সভা থেকে মমতা আক্রমণাত্মক ভাবে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলেছিলেন, ছবি বিক্রি করে ১ টাকাও আমার অ্যাকাউন্টে পড়েছে প্রমাণ করতে পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেব। বৃহস্পতিবার তিনি বই মেলার উদ্বোধন করে দৃশ্যত ভাল মুডে ছিলেন তিনি।

অনুষ্ঠানের শেষ দিকে তাঁর হাতে আঁকা ছবি দিয়ে একটা ক্যালেন্ডার প্রকাশ হয়। তখনই মাইক হাতে নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, তিনি কিন্তু সাংসদ বা বিধায়ক হিসাবে মাইনে কিংবা পেনশন নেন না। তাঁর ব্যক্তিগত খরচ খরচার জন্য আয়ের অন্য ব্যবস্থা রয়েছে।আমি পার্লামেন্ট থেকে প্রায় ১ লক্ষ টাকার কাছাকাছি পেনশন পেতে পারি। কারণ, আমি সাত বারের এমপি ছিলাম। আর এখন আমি তো বিধায়ক, মুখ্যমন্ত্রী পদে রয়েছি। সেখানেও মাসে লাখ খানেক টাকা করে মাইনে পেতে পারতাম। কিন্তু গত সাত বছর ধরে ১ পয়সাও মাইনে নিইনি। আমি না নিয়েছি পার্লামেন্টের টাকা,না নিয়েছি এখানকার টাকা।গানের সুর দিয়ে এবং বইয়ের রয়্যালটি হিসাবে যা পাই তা দিয়ে আমার চলে যায়। আমার বইগুলো খুব বিক্রি হয়। কয়েকটা বেস্ট সেলার।”

মুখ্যমন্ত্রীর আঁকা কিছু ছবি নিয়ে ক্যালেন্ডার তৈরির নেপথ্যে রয়েছেন শিল্পী শুভাপ্রসন্ন। তাঁকে উদ্দেশ করে মমতা বলেন, “শুভাদা আমাকে বলছিলেন, এই যে ক্যালেন্ডার রিলিজ করছ, আবার ওরা না বলে যে কয়েক কোটি টাকা নিয়েছ। আমি বলেছি, বলে বলুক, দরকার হলে ক্যালেন্ডারগুলো আর কয়েকটা বই পাঠিয়ে দেব।”

পর্যবেক্ষকদের মতে, উনিশের ভোটের আগে সিবিআই যখন ছবি বিক্রির প্রসঙ্গ খুঁচিয়ে তুলেছে তখন ব্যক্তিগত সততা ও নিষ্ঠার কথা মানুষের কাছে তুলে ধরতেই মমতা এ দিন বইয়ের রয়্যালটির কথা জানিয়েছেন।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *