মামার বাড়িতে আত্মহত্যা যুবকের

জয়দীপ মৈত্র, দক্ষিন দিনাজপুরঃ মামার বাড়িতে আত্মহত্যা এক যুবকের। দক্ষিন দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর শহরের শান্তি কলোনিতে ঘটনাটি ঘটেছে।
সুত্রের খবর, মৃত যুবকের নাম টোটন মণ্ডল (১৮)। বাড়ি নালাগোলা এলাকায়। গঙ্গারামপুরে মামার বাড়িতে থাকত টোটন। একটি সোনার দোকানে কাজ করত সে। পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তার গঙ্গারামপুর থানার সাহাপাড়া এলাকার একটি মেয়ের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বৃহস্পতিবার অনেক রাত পর্যন্ত টোটন মেয়েটির সঙ্গে ফোনে কথা বলে। পরে রাতেই গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় টোটনের দেহ তার ঘরে ঝুলতে দেখা যায়।
টোটনের মামা দরজা ভেঙে দেহ উদ্ধার করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থানে গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ যায়।
টোটনের মামি মঞ্জু মণ্ডল বলেন, “গতকাল রাতে সবাই মিলে খাওয়াদাওয়া করার পর আমরা যে যার নিজের ঘরে চলে যাই। কিন্তু গতরাতে টোটন তাঁর মোবাইল ফোনে কথা বলছিল অনেক রাত পর্যন্ত। আমরা অতটা গুরুত্ব দিইনি। কিন্তু রাত্রি ১২.৩০ মিনিট নাগাদ হঠাৎ একটা আওয়াজ পাই। গিয়ে দেখি বাড়িতে থাকা গরুর দড়ি গলায় লাগানো অবস্থায় টোটন শোওয়ার ঘরে ঝুলছে।”
বাড়ির লোকজন দেহ নিয়ে গঙ্গারামপুর হাসপাতালে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত ডাক্তার টোটনকে মৃত বলে ঘোষণা করে। গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ এসে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বালুরঘাট হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।ঘটনার জেরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছ।

দেশ ও এই সময়

24×7 NATIONAL NEWS PORTAL

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *